Freelancing competetion

এত কম্পিটিশনে আমি কিভাবে ফাইভারে অর্ডার পাবো

ফাইভার এ এখন যেমন কম্পিটিশন অনেক, তেমনই আগের চেয়ে এখন নতুনদের জন্য Gig Rank করা বা তাড়াতাড়ি রেস্পন্স পেতে শুরু করা অনেকটা সহজ।
আগে যেখানে একজন ভালো সেলার প্রথম পেজ এর পজিশন দখল করে রাখতো এখন তেমনটা দেখছি না। এখন এক এক জনের সার্চ প্রেফারেন্স, সার্চ হিস্টোরি, লোকেশন -এসকল বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে এক এক পজিশন এ গিগ দেখাতে পারে।
🎯লোকাল সেলার আপনার গিগ যেই পজিশনে দেখতে পাবে, একজন বায়ার আপনার গিগ, সেই সেম কিওয়ার্ড এর জন্য অন্য পজিশন এ দেখতে পারে।
কি করা যেতে পারে?
এক্ষেত্রে আপনাকে এমন কিছু নিস বের করার জন্য কাজ করা উচিত যাতে গিগ এর সংখ্যা খুবই কম।
এখন একটু ভাবুন, একটা কিওয়ার্ড এ যদি গিগ-ই থাকে ২০টা, তাহলে আর আপনার Rank নিয়ে ভাবা লাগবে?
এমন অবস্থায় আপনার গিগ এর টাইটেল, ডেসক্রিপশন আর **গিগ ইমেজ দিয়েই আপনি প্রথম বা দ্বিতীয় Row তে এসে পরতে পারবেন।
🎯অমুক বড় ভাই, অমুক গিগ খুলে অনেক ভালো সেল করছে, মাসে মাসে হাজার ডলার কামাচ্ছে, তা দেখে আপনিও গিগ খুলে বসলে -একে তো কম্পিটিশন বাড়বে, অন্যদিকে অর্ডার না পেলে বা কম পেলে আপনি ডিপ্রেশন এ চলে যাবেন।
সেম গিগ খুলেও আপনি সেই বড় ভাই এর মত রেস্পন্স নাও পেতে পারেন।
কারণ সেই বড় ভাই এর অভিজ্ঞতা আর সেলস স্কিল (Sales Skill), কনভারসেশন এর ধরন এখানে মেইন টারনিং পয়েন্ট হিসেবে কাজ করছে, একজন বায়ার কে ক্লাইয়েন্ট এ কনভার্ট করার ক্ষেত্রে।
🎯এখন কম কম্পিটিশন এর জন্য কিওয়ার্ড ফাইন্ড করতে থাকেন, কারণ দেরি হলেও আপনার বনে আপনি একাই থাকবেন রাজা।🎯

About admin

Check Also

ফাইভারে কাজ করার নিয়ম

নতুন দের জন্য ফাইভার, কিভাবে কাজ করবেন ফাইভারে?

ফ্রীলান্সিং এর কাজ করার জন্য ফাইভার বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় একটি মার্কেটপ্লেস। বায়ার ও সেলার উভয়ের কাছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *